Wed. Apr 8th, 2020

সীতাপুর গ্রামে কীভাবে পৌষ পার্বণ পালিত হয় জেনে নিন | মকর সংক্রান্তি | পৌষ সংক্রান্তি

1 min read

মকর সংক্রান্তি বা পৌষ সংক্রান্তি

পৌষ সংক্রান্তি বা মকর সংক্রান্তি হল বাংলার সংস্কৃতির উৎসব। পৌষ মাসের সংক্রান্তি বা শেষ দিন এই উৎসব পালিত হয়। এই উৎসব মূলত ফসল তোলার উৎসব। এই দিনে বাঙালিরা উৎসবে মেতে ওঠে।

Makar Sankranti

সীতাপুর গ্রামে ধান কাটা ও ফসল বাড়িতে তোলার অসাধারণ ভিডিও দেখুন ->

সীতাপুর  নবীনমানুয়া

সীতাপুর নবীনমানুয়া সহ পার্শ্ববর্তী গ্রামেও এই উৎসব পালিত হয়। নতুন ধান মাঠ থেকে বাড়িতে তোলার আনন্দে মেতে ওঠে গ্রামবাসীরা। অগ্রহায়ণ মাস থেকে গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে প্রত্যেক বৃহস্পতিবার লক্ষী মাতার পূজো করা হয় এবং এই পৌষ সংক্রান্তির দিন এই পূজোর সমাপ্তি ঘটে। আবার অনেকদের বাড়িতে সারা বছর বৃহস্পতিবার পূজো করে থাকে। এই পৌষ সংক্রান্তির দিনে গ্রামবাসীরা যে ভাবে কাটায় তা নিচে বর্ননা করা হল :

১| সকালে ঘুম থেকে উঠেই মন্দির ধুয়া বা লাতা দেওয়া হয়।

২| বাড়ির মহিলারা চাল বেটে মন্দির সহ বাড়ির বিভিন্ন স্থানে আলপনা এঁকে সাজিয়ে তোলে।

Makar Sankranti
“আলপনা”

৩| এর পর বাড়ির ছোটো ছোটো ভাই বোন  বাটি, পিতলের গামলা ও ব্যাগের মধ্যে  আতপ চাল, তিল, শাঁখ আলু, আদা, ও বিভিন্ন ফল নিয়ে নিজের গ্রামের ও পাশের গ্রামের মন্দিরে যেখানে পূজো হয় সেইখানে মকর দিতে যায়।

Makar Sankranti
“মকর”

৪| অনেক মন্দির ও বাড়িতে অন্ন প্রসাদ বিতরণ হয়।

৫| গ্রামের সকলে দল বেঁধে মকর দিতে যাওয়া, ঘোরাঘুরি করা, খাওয়া দাওয়া করে।

৬| অনেক ছেলে মেয়েরা দুপুরে মাঠে ঘুড়ি উড়ানোতে ব্যাস্ত থাকে।

৭| দুপুরের পর বাড়িতে মকর তৈরি করা হয়।

৮| আউনি বাউনি তৈরি করা হয়। দু-তিনটি খড় একসঙ্গে লম্বা করে পাকিয়ে তার সঙ্গে সরষে-ফুল, আমপাতা ইত্যাদি গেঁথে ‘আউনি বাউনি’ তৈরি করা।

Makar Sankranti
“আউনি বাউনি”

৯| দুপুরে পর বাড়িতে বাড়িতে অন্তিম পূজো শুরু হয়।

Makar Sankranti

১০| তারপর আউনি বাউনি গুলো খামারে, ধানের গোলাতে, রান্না ঘর ও অন্যান্য স্থানে দেওয়া হয়।

১১| সন্ধ্যায় শুরু হয় পিঠে পুলি বানানো। নানান ধরনের পিঠে বানানো হয় এবং তা দুধ ও খেজুর গুড়ের সঙ্গে খাওয়া হয়।

Pithe Puli
“পিঠে পুলি”

১২| পরের দিন পালিত হয় “খলাবিশ্রাম” ।



“আবার আসিব ফিরে ” – সীতাপুর গ্রামের এক অসাধারণ ভিডিও দেখুন ->





More Stories

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *